আজ ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১লা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

স্বামীর সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বলে আত্মহত্যা গৃহবধূর

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক:বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার নওয়াপাড়া প্রফেসরপাড়ার একটি ভাড়া বাসা থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

গৃহবধূ কুলসুমের আত্মহত্যার কারণ এখনও জানা যায়নি। তবে আত্মহত্যার আগে তিনি ঘরের মেঝেতে নিজের শরীরের রক্ত দিয়ে ‘এ প্লাস আর’ লিখে গেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রথম স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ির পর দ্বিতীয় বিয়ে করেন কুলসুম আক্তার। তার বর্তমান স্বামীর নাম ইমতিয়াজ উদ্দিন। তিনি ঢাকায় ব্যবসা করেন। তবে দ্বিতীয় স্বামীর সঙ্গে সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না তার। ইমতিয়াজ তাকে ছেড়ে অন্য একটি মেয়েকে বিয়ে করবেন বলেও জানতে পেরেছিলেন কুলসুম। এ কারণে হয়তো তিনি আত্মহত্যা করতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কুলসুমের প্রথম ঘরের কন্যা জান্নাতুল ফেরদৌস মিম জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর তার মায়ের কক্ষ বন্ধ দেখতে পেয়ে ডাকাডাকি করেন। সাড়া না পেয়ে এলাকাবাসীর সহায়তায় ঘরের দরজা ভেঙে ফ্যানের সঙ্গে তার মায়ের লাশ ঝুলতে দেখতে পান।

পরে বিষয়টি থানায় জানানো হলে পুলিশ এসে গৃহবধূ কুলসুমের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

তবে কী কারণে তার মা আত্মহত্যা করেছেন, তা বলতে পারেননি মিম।

পুলিশ জানিয়েছে, আত্মহত্যার আগে কুলসুম সিরিঞ্জ দিয়ে নিজের শরীরের রক্ত বের করে ঘরের মেঝেতে ‘এ প্লাস আর’ লেখেন। পরে নিজের ওড়না গলায় পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। তবে ‘এ প্লাস আর’ মানে কী, সেটা জানতে পারেনি পুলিশ।

অভয়নগর থানার ওসি (তদন্ত) মিলন কুমার মন্ডল জানান, গৃহবধূর আত্মহত্যার খবর পেয়ে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করেছে। তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে