আজ ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

৫০০ ডোজ করোনা ভ্যাকসিন নষ্ট করে গ্রেফতার ফার্মাসিস্ট

প্রথমবার্তা প্রতিবেদক: প্রতিষেধকের অপেক্ষায় গোটা বিশ্ব। হাতে গোনা কিছু দেশে টিকা দেয়া শুরু হয়েছে। এ অবস্থায় করোনা-টিকার পাঁচশোরও বেশি ডোজ় নষ্ট করার অভিযোগ উঠেছে এক ফার্মাসিস্টের বিরুদ্ধে।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের আমেরিকার উইসকনসিনে ঘটেছে এ ঘটনা। বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই ফার্মাসিস্টকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জেরার মুখে ওই ফার্মাসিস্ট স্বীকারও করেছেন যে, তিনি ইচ্ছাকৃতভাবে করোনভাইরাস ভ্যাকসিনের ৫৭টি ভায়াল ফ্রিজে রাখেননি।

গ্রাফটনের অ্যাডভোকেট অররা হেল্থ হসপিটাল থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় যে, এই পরিস্থিতি তাদের মূল মূল্যবোধকে লঙ্ঘন করেছে এবং ফার্মাসিস্টকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তারা বিশ্বাস করে চলেছেন যে এই ভ্যাকসিনই এই মহামারি থেকে বেরিয়ে আসার পথ।

হাসপাতালটি বুধবার বলেছে, ওই ব্যক্তির এই কাজের জন্য ৫০০ জনেরও বেশি মানুষের ভ্যাকসিন পেতে দেরী হবে। আর এতে তারা হতাশ।

গ্রাফটন পুলিশ জানতে পেরেছে, ফ্রিজে না রাখা ভ্যাকসিনের ডোজগুলি রোগীদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছিল৷ তবে স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানিয়েছেন যে ক্ষতিগ্রস্ত ভ্যাকসিন স্বাস্থ্য উদ্বেগের কারণ হবে না। নষ্ট হওয়া ভ্যাকসিন ডোজগুলির মূল্য ৮,০০০ ডলার থেকে ১১,০০০ ডলার হতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত, ফাইজারের টিকাকে বিশ্বে প্রথম জরুরিকালীন ব্যবহারের ছাড়পত্র দিয়ে দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। অর্থাৎ তৃতীয় বিশ্বের অন্তর্গত দরিদ্র দেশগুলিও খুব শীঘ্রই করোনা টিকা পেতে চলেছে। যে কোনো দেশের ক্ষেত্রেই কোনো ভ্যাকসিনকে ছাড়পত্র দেয়, সেই দেশের নিয়ামক সংস্থা। কিন্তু দরিদ্র তথা পরিকাঠামোবিহীনগুলি দেশগুলি অনেকাংশেই নির্ভর করে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদনের উপর।

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার রাতেই জানিয়ে দেয়া হয় ফাইজার-এনবায়োটেকের টিকাটি নিরাপত্তা ও কার্যকারিতা তাদের মানদণ্ডে সাফল্যের সঙ্গেই পাশ করেছে। এবার দেশগুলি টিকাকরণের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে পারে।

বলাই বাহুল্য, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন-সহ ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের বহু দেশ এই টিকা ব্যবহার করতে শুরু করেছে।