1. [email protected] : bijoy : bijoy Book
  2. [email protected] : News Room : News Room
  3. [email protected] : news uploader : news uploader
  4. [email protected] : prothombarta :
আমরা তাই শুনব প্রধানমন্ত্রী যা বলবেন: আন্দোলনরত শিক্ষকরা
সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৫৮ রাত

আমরা তাই শুনব প্রধানমন্ত্রী যা বলবেন: আন্দোলনরত শিক্ষকরা

  • পোষ্ট হয়েছে : বৃহস্পতিবার, ২০ জুলাই, ২০২৩

প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা না হওয়া পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি চলবে বলে জানিয়েছেন আন্দোলনরত শিক্ষকরা। তারা বলেছেন, তিনি আমাদের যা বলবেন আমরা তাই শুনব। আন্দোলনরত শিক্ষকরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের অপেক্ষায় থাকলেও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বৃহস্পতিবার বেলা আড়াইটা পর্যন্ত কেউ তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেননি বলে জানান শিক্ষক সমিতির নেতা শেখ কাওছার আহমদ।

 

বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণের দাবিতে দশম দিনে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান ধর্মঘট পালন করেন শিক্ষকরা। বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির (বিটিএ) ডাকে গত ১১ জুলাই থেকে প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে আসছেন শিক্ষকরা।

 

আন্দোলনের নবম দিন বুধবার বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষা জাতীয়করণের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তারা মাঠ ছাড়বেন না বলে জানিয়েছেন। এদিন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির সঙ্গে বৈঠক করেন শিক্ষক সমিতির নেতারা কিন্তু সেখানে কোনো সমাধান আসেনি।

 

বৈঠকের পর শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, নির্বাচনের আগে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ সম্ভব নয়। তবে জাতীয়করণের বিষয়ে দুটি কমিটি করা হবে বলে জানান তিনি।

 

বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শেখ কাওছার আহমদ বলেন, আমাদের দাবির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী পজিটিভ। এজন্য তিনি দুটি কমিটি করতে বলেছেন। আমরা দাবি করেছিলাম কমিটিতে আমাদের সংগঠনের নেতাদের অন্তর্ভুক্ত করতে কিন্তু শিক্ষামন্ত্রী সেটি করবেন না। তাহলে আমরা কার ওপর আস্থা রাখব?

 

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পরেও জাতীয়করণের ঘোষণা না এলে অবস্থান কী হবে, এ প্রশ্নে কাওছার আহমদ বলেন, জাতীয়করণ করা একটি লম্বা প্রক্রিয়া, এটি যতদিনে শেষ না হবে ততদিন উৎসব ভাতা ২৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে দেওয়া এবং দুই কমিটিতে শিক্ষক নেতাদের যুক্ত করার দাবি জানাব।

 

বৃহস্পতিবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাব এলাকায় দেখা গেছে, এক পাশের সড়ক দিয়ে যানবাহন চললেও অন্য পাশের সড়ক অবরোধ করে আছেন শিক্ষকরা। শিক্ষক নেতারা অস্থায়ী মঞ্চ থেকে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎ চেয়ে বক্তব্য দিচ্ছেন। তবে শুরুর দিকের চেয়ে সেখানে শিক্ষকদের সংখ্যা বুধবার থেকে বেশ কম দেখা গেছে।

 

এ বিষয়ে শিক্ষক সমিতির নেতারা বলেন, অনেকেই ঢাকায় আসছেন আবার অনেকে বাড়ি চলে যান। সবারই তো পরিবার আছে। শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে ভালো কোনো সিদ্ধান্ত আসবে সেই আশায় ছিলেন সবাই।

 

জাতীয় নির্বাচনের আগে মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ সম্ভব নয় বলে শিক্ষামন্ত্রী জানালেও এটি সরকারের অবস্থান নয় বলে মনে করেন কাওছার আহমদ।

 

শিক্ষক সমিতির এই নেতা বলেন, কী পর্যবেক্ষণ করবেন উনি? উনার মন্ত্রণালয় থেকেই তো ৩১৭টি উচ্চ বিদ্যালয় এবং ৩৪০টি কলেজ জাতীয়করণ করা হয়েছে। কোন গবেষণায় এসব জাতীয়করণ করা হয়েছে?

 

সেগুলো যে ফরমেটে করেছেন, সেই একই ফরমেটেই তো মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করা যায়। নতুন করে কী গবেষণা করতে হবে?

Facebook Comments Box

শেয়ার দিয়ে সাথেই থাকুন

print sharing button
এ বিভাগের অন্যান্য খবর