আজ ২২শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৬ই জুলাই, ২০২০ ইং

বাংলা ভাষায় বৃহত্তম সাহিত্য পার্বণ সাহিত্য উৎসব 

নিজস্ব প্রতিবেদক, প্রথম বার্তা:  ভাষায় বৃহত্তম সাহিত্য পার্বণ সাহিত্য উৎসব ও লিটল ম্যাগাজিন মেলায় ১২ জানুয়ারি ২০২০ রবীন্দ্র-ওকাকুরা ভবন, নবনীতা দেবসেন মুক্তমঞ্চে কবিতা পাঠ করলেন কবি ফারুক আহমেদ।

 

 

 

 

মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগের অন্তর্গত পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাদেমির উদ্যোগে আকাদেমির দ্বিতীয় ভবন বিধাননগরে রবীন্দ্র ওকাকুরা ভবন ও সংলগ্ন প্রাঙ্গণে প্রতিদিন দুপুর ২টো থেকে রাত ৮ট ১১-১৫ জানুয়ারি ২০২০ সাহিত্য উৎসব ও লিটিল ম্যাগাজিন মেলা শুরু হয়েছে।

 

 

 

 

শনিবার ১১ জানুয়ারি ২০২০ রবীন্দ্র-ওকাকুরা মঞ্চে বিকেল বেলায় আনুষ্ঠানিক উদ্বোধ করলেন দেবেশ রায়।উপস্থিত ছিলেন প্রধান অতিথি ইন্দ্রনীল সেন, মাননীয় রাষ্ট্রমান্ত্রী, তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ এবং পর্যটন বিভাগ, পশ্চিমবঙ্গ সরকার বিশেষ অতিথি  হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কবি জয় গোস্বামী, সভাপতি, পশ্চিমবঙ্গ কাজী নজরুল ইসলাম আকাদেমি সভামুখ্য  শাঁওলী মিত্র, সভাপতি পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাদেমি।

 

 

 

 

৩০০ লিটল ম্যাগাজিনের সম্ভার ৪০০ কবি-লেখকের সম্মিলন।  ১ টি সাময়িকপত্রের ফিরে দেখা সংকলন। ৫ টি সন্ধ্যা নানান ধারার বাংলা গান। সম্মাননাজ্ঞাপন, আলোচনা, গল্প ও কবিতা পাঠ অনুষ্ঠানে সকলের সাদর আমন্ত্রণ।এই মেলায় ১২ জানুয়ারি ২০২০ বিকেল বেলায় রবীন্দ্র-ওকাকুরা নবনীতা দেব সেন মঞ্চে কবিতা পাঠ করার জন্য সাদর আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল কবি ও উদার আকাশ পত্রিকা প্রকাশনের সম্পাদক ফারুক আহমেদকে।

 

 

 

 

পশ্চিমবঙ্গ সরকারি উদ্যোগে আয়োজিত এই মহা উৎসব ও সাংস্কৃতিক মিলন প্রয়াসের আয়োজনে কবিতা পাঠে কবি ফারুক আহমেদকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাদেমি-র প্রশাসন আধিকারিক বাসুদেব ঘোষ।তিনি লিখিত আমন্ত্রণ পত্রে জানিয়েছেন, ‘আশা করি আপনার অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলা সাহিত্যের এই বৃহত্তম উৎসব সার্থক হয়ে উঠবে।’

 

 

 

 

লিটল ম্যাগাজিন মেলাতে উদার আকাশ পত্রিকার ২২৩ নম্বর টেবিলে সবাইকে সাদর আমন্ত্রণ জানিয়েছেন পত্রিকার সম্পাদক ফারুক আহমেদ এবং পত্রিকার প্রাণপুরুষ সম্পাদকের আব্বাজান বিশিষ্ট গল্পকার মোহাম্মদ আবেদ আলি।

 

 

 

 

কবি ও সম্পাদক ফারুক আহমেদ বললেন, “মহা এই সাংস্কৃতিক উৎসবে কবিতা পাঠে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য আমি কৃতজ্ঞ সরকারের কাছে। আমি সরকারি উদ্যোগে এই উৎসবের সার্বিক সাফল্য কামনা করছি।”

এই পোস্টটি আমাদের সোশাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন