আজ ২৬শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১০ই জুলাই, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

‘প্রেম নিবেদন দিবস’

প্রথমবার্তা,নিজস্ব প্রতিবেদক:  ‘প্রহরশেষের আলোয় রাঙা সেদিন চৈত্রমাস তোমার চোখে দেখেছিলাম আমার সর্বনাশ’! চৈত্রের ঢের সময় বাকী থাকলেও বসন্ত যে আসন্ন তার জানান দিচ্ছে ফেব্রুয়ারি।

 

 

 

 

নিন্দুকের কাছে মূল্য থাক আর না থাক প্রেমপিয়াসীদের কাছে ফেব্রুয়ারি ৮ মানেই ‘প্রোপজ ডে’। ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালোবাসার দিন হিসেবে স্মরণীয় হতে পারলে কবে ‘তাকে’ প্রেম প্রস্তাব দেব তার জন্য একটা দিন ধার্য হলে ক্ষতি কি?

 

 

 

‘প্রপোজ ডে’ বা প্রেম নিবেদনের দিন হিসেবে দিনটিকে কেনো পালন করা হয়? এ প্রশ্নের উত্তরে বিস্তর খোঁজাখুঁজির পর যা পাওয়া যায় তার অর্থ হলো ভ্যালাটাইন ডে-এর গোটা সপ্তাহটিকে পালন করা হয় ভ্যালেন্টাইন উইক বা ভ্যালেন্টাইন সপ্তাহ হিসেবে। এ সপ্তাহের প্রতিটি দিন প্রেমের এক একটি প্রতীককে সামনে রেখে আদতে প্রেমের উদযাপন করা।

 

 

 

 

ভ্যালেন্টাইন উইকের শুরুতে রোজ ডে, এরপর যথাক্রমে প্রপোজ ডে, চকলেট ডে, টেডি ডে, প্রমিজ ডে, হাগ ডে, কিস ডে এবং সবশেষ ভ্যালেন্টাইন ডে (১৪ ফেব্রুয়ারি)।

 

 

 

 

যদিও ঐতিহাসিক ভাবে এ দিনে প্রেমের প্রস্তাব দেওয়া নিয়ে কোনো প্রথার নির্ভরযোগ্য ঐতিহাসিক ব্যাখ্যা পাওয়া যায় নি, তবে ভ্যালেন্টাইন সপ্তাহে প্রেমের প্রস্তাব দেওয়ার বিষয়টি অবশ্যই একটু বেশি রোমান্টিক।

 

 

 

 

 

অনেক সমালোচক বলে থাকেন প্রেমের প্রস্তাব দেবার জন্য আলাদা ঋতু, আলাদা দিন কিংবা বিশেষ আবহ কেনো লাগবে? প্রেম চিরন্তন তাই যেকোনো মুহূর্তই প্রেমের জন্য আদর্শ।

 

 

 

 

এই বক্তব্যের যুক্তি গ্রাহ্যতার প্রতি সম্মান জানিয়েই বলা যায়, প্রেম নিবেদনের জন্য একটি বিশেষ দিন প্রেমের মহিমাকে আরও কিছুটা বৃদ্ধি করে। তাই গোটা বিশ্ব জুড়ে পালিত হয় প্রেম নিবেদনের এ দিবস।

এই পোস্টটি আমাদের সোশাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন