আজ ১লা শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জুলাই, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

সবচেয়ে কম টেস্ট বাংলাদেশে আক্রান্তে শীর্ষ ১৭ দেশের মধ্যে!

প্রথমবার্তা,প্রতিবেদকঃ দেশজুড়ে ক্রমশ ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। কিন্তু পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারের যে ধরনের পদক্ষেপ নেয়া দরকার, তার কোনোটিই নেয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ বিশেষজ্ঞদের। বিশেষ করে সংক্রমণ বিবেচনায় নমুনা টেস্টের পরিমাণ অনেক কম বলে অভিযোগ। ফলে করোনা রোগীর প্রকৃত সংখ্যা এখনো শনাক্ত করা সম্ভব না হওয়ায় পরিস্থিতি আরো জটিল হওয়ার শঙ্কা রয়েছে।বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনা সংক্রমণের তালিকায় শীর্ষ ১৭-তে থাকা দেশগুলোর মধ্যে বর্তমানে সবচেয়ে কম নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে বাংলাদেশে।

এক্ষেত্রে প্রতি ১০ লাখে নমুনা পরীক্ষা হিসেব করা হয়েছে। বর্তমানে সংক্রমণের তালিকায় ১৭ নম্বরে রয়েছে বাংলাদেশ।স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসেব অনুযায়ী, বাংলাদেশে আজ রোববার পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৭ লাখ ৩০ হাজার ১৯৭টি। এদের মধ্যে মোট ১ লাখ ৩৭ হাজার ৭৮৭ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। নমুনা টেস্টের তুলনায় শনাক্তের হার ১৮ দশমিক ৮৭ শতাংশ।তালিকায় সবচেয়ে বেশি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে এখন পর্যন্ত ৩ কোটি ২ লাখ মানুষের নমুনা টেস্ট করা হয়েছে। এদের মধ্যে ২৫ লাখ ৯৬ হাজার ৭৭১ জন রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। তবে শনাক্ত বিবেচনায় এই হার অন্যান্য দেশের তুলনায় কিছুটা কম।ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত প্রায় ১০ ভাগের এক ভাগ নমুনা টেস্ট করা হয়েছে। অর্থাৎ প্রতি ১০ লাখে ১৩ হাজার ৭৬৬ জনের পরীক্ষা করা হয়েছে। এছাড়া রাশিয়ায় প্রতি ১০ লাখে টেস্ট করা হয়েছে ১ লাখ ২৮ লাখের বেশি, যুক্তরাজ্য প্রতি ১০ লাখে ১ লাখ ৩০ হাজারের বেশি এবং ভারতে প্রতি ১০ লাখে টেস্টের সংখ্যা ৫ হাজারের কিছু বেশি।

এই পোস্টটি আমাদের সোশাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন