আজ ১লা শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জুলাই, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

বুড়িগঙ্গায় যাত্রীবাহী লঞ্চডুবির ঘটনায় ৩২ জনের হৃদয়বিদারক মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির

প্রথমবার্তা প্রতিবেদকঃ এক যৌথ শোকবার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি মো: সিরাজুল ইসলাম ও সেক্রেটারি জেনারেল সালাহউদ্দিন আইউবী বলেন, গতকাল সোমবার সকালে সদরঘাটের শ্যামবাজার পয়েন্টে ময়ূর-২ নামের লঞ্চের সঙ্গে ধাক্কা লেগে মর্নিং বার্ড নামের একটি লঞ্চ ডুবে যায়। এ দুর্ঘটনায় সর্বশেষ প্রাপ্ত সংবাদ অনুযায়ী নারী ও শিশুসহ ৩২জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে এবং মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় গোটা জাতি শোকাহত। এর আগেও এমন ভয়াবহ লঞ্চ দুর্ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু দূর্ঘটনা রোধে সরকার তেমন কোন কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। দেশে যোগাযোগ ব্যবস্থায় একের পর এক নৈরাজ্য ও ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটলেও সরকার জননিরাপত্তার বিষয়টিতে বরাবরই উদাসীনতার পরিচয় দিয়ে যাচ্ছে। ফলে জাতিকে বার বার এমন মর্মস্পর্শী দুর্ঘটনা দেখতে হচ্ছে। দুর্ঘটনায় নিহতদের শোকাহত পরিবারের সদস্যদেরকে সান্তনা দেয়ার ভাষা আমাদের জানা নেই। আমরা এ ধরণের নৌ-দুর্ঘটনা রোধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ ও নিহতদের পরিবার-পরিজনদের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ প্রদান করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। একইসাথে নৌ-দুর্ঘটনার সাথে জড়িত প্রত্যেককে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানাচ্ছি। আশাকরি নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ নৌ-যান চলাচলের ক্ষেত্রে আরো সতর্ক পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।

লঞ্চ ডুবে যারা নিহত হয়েছেন আমরা তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করছি এবং তাদের শোক সন্তপ্ত পরিবার-পরিজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

এই পোস্টটি আমাদের সোশাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন