প্রথমবার্তা, প্রতিবেদক: ইউক্রেনে গত ১০ মাস ধরে চলছে রাশিয়ার সামরিক আগ্রাসন। পশ্চিমাদের সামরিক সহায়তায়ও দমানো যাচ্ছে না রুশ বাহিনীকে।এমতাবস্থায় কূটনৈতিক পথে যুদ্ধ থামানোর জন্য বিশ্বনেত্রীবৃন্দের সহায়তা চাইলেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। খবর রয়টার্সের।

 

এ ব্যাপারে জরুরি পদক্ষেপ নিতে রোববার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এবং তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান ছাড়াও ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর সঙ্গে আলোচনা করেছেন জেলেনস্কি।

 

এ সময় বাইডেন ও ম্যাক্রোঁ জেলেনস্কিকে আরও আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা দেওয়ার আশ্বাস দেন এবং এরদোগান ইউক্রেনের শস্য রপ্তানি নির্বিঘ্ন করার প্রতিশ্রুতি দেন।

 

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রোববার রাতে পোস্ট করা এক ভিডিওবার্তায় জেলেনস্কি বলেন, মিত্রদের সঙ্গে খুবই ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ রক্ষা করছি। আশা করছি আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ইউক্রেন যুদ্ধ পরিস্থিতির উল্লেখযোগ্য উন্নতি ঘটবে।

 

রাশিয়া গত ফেব্রুয়ারিতে সামরিক আগ্রাসন শুরুর পর থেকে এ পর্যন্ত বহুবার বাইডেন, এরদোগান ও ম্যাক্রোঁর সঙ্গে আলোচনা করেছেন জেলেনস্কি। কিন্তু একই দিনে তিন বিশ্বনেতার সঙ্গে এর আগে আর আলোচনা হয়নি ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের।শুধু তাই আজ সোমবার জেলেনস্কি কথা বলবেন জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলৎজের সঙ্গে।

 

এ ছাড়া সোমবার অনলাইন কনফারেন্সে জি-৭ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনা করবেন জেলেনস্কি।আলোচনার অন্যতম ইস্যু হচ্ছে— ইরান ও রাশিয়ার ওপর কূটনৈতিক চাপ সৃষ্টির জন্য নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা।